0

একটা সার্ভে অনুযায়ী প্রতিবেশী অন্যান্য দেশের তুলনায় ভারতে মেয়েদের অবস্থা সবচেয়ে খারাপ।সেই নমুনা তো রোজ দেখছি।কোথাও বধু হত্যা তো কোথাও গণধর্ষন, সমাজের জেঠুদের হাতে কোথাও মহিলার চরিত্র খারাপ বলে কঞ্চি পেটা, চুল কেটে নেওয়া তো কোথাও ডাইনী সন্দেহে(?!) হত্যা।এছাড়া ঈভ টিজিং, অফিসে, পাবলিক ট্রান্সপোর্টে গায়ে হাত দেওয়া এগুলো তো আর খবর ও হয়না। কেন?

    কিছুদিন আগে মিতার মৃত্যু এখন খবর।গৃহবধূ হত্যা তো আরশোলা মারার থেকেও সহজ।একটা মেয়ে জন্মের সাথে সাথেই আত্মীয়পরিজনদের আলোচনা তার বিয় নিয়ে। এটা যে ভেবে চিনতে করা হয় তা কিন্তু না।আসলে সমাজের মানসিকতাই এমন।মেয়েরাও ধরেই নেয় যে ভালো বিয়েতেই তার জীবন স্থিত হবে। হায় রে জীবন! একটা ছেলের জীবনে নিশ্চয়তা যেখানে চাকরী বা ব্যাবসা মেয়েদের ক্ষেত্রে বিয়েই সেই কাঙ্খিত নিশ্চয়তা।

  যারা লেখা পড়ার সুযোগ পায়না তাদের থেকেও খারাপ অবস্থা লেখা পড়া জানা মেয়ের।তুমি যতই পড় বা গুনী হও বিয়ে দিয়েই তোমার অভিভাবকদের শান্তি। মিতা বা অন্য যে সব মেয়েরা আজ অবধি পণের বলি হয়েছে সব্বার বাবা- মা মেয়ের মৃত্যুর পরে আইনের সাহায্য নিয়েছেন; কেন?

1

এই, “কেন”ই তো মিলিয়ন ডলার কোয়েশ্চেন।কোন শ্বশুড়বাড়ি ই প্রথম দিন ই বৌ কে মেরে ফেলেনা।ভালো করে কেস স্টাডি করলেই বোঝা যায় প্রথমে মৌখিক অপমান, নানারকম মেন্টাল প্রেশার দেওয়া হয়।তারপরে চড়, থাপ্পড় তারো পরে বেশ বড় সড় আঘাত।এই সময় মেয়ের বাপেরবাড়ির ভুমিকা অদ্ভুত রকম উদাসীনতায় ঢাকা থাকে। মেয়ে যদি মা-বাবার কাছে বলেও তো সেই এক কথা, “মেয়েদের একটু মানিয়ে নিতে হয়।“ এই কাজটা করেন বেশিরভাগ সময় মেয়ের মা- কাকি, ঠাকুমা; মানে মেয়েরাই।পিতৃতন্ত্র টিকেই আছে মেয়েদের জন্য। এর পর মেয়ে মারা গেলে সেই মা- বাবাই পুলিশের কাছে মেয়েকে ন্যায় বিচার দেওয়াতে জান।মিতার ক্ষেত্রে অ আলাদা কিছু হয়নি। ওর দাদা বলছে আগেও বোনের গায়ে কালশিটে দাগ দেখেছিলেন, জানতে চাওয়াতে মিতা জবাব দেয়নি। আহা রে! কত ইনোসেন্ট দাদা! মিতা নাকি এর মাঝেই একলাখ টাকা চেয়েছিলো, না পেয়ে মুখ কালো করে চলে গেছিলো।তাও ওর বাবা-মা, দাদা বোঝেনি?

 সবাই বোঝে। ওনারাও বুঝেছিলেন কিন্তু বিবাহিত মেয়েকে ফিরিয়ে আনা?! অসম্ভব! ওনারাও অপেক্ষা করছিলেন। বধূ হত্যায় যত দোষ শ্বশুর বাড়ির তার থেকে কোন অংশে কম বাপের বাড়ি? কেন আজ ও মেয়েদের বিয়ে দেওয়া হয় আর ছেলেরা বিয়ে করে? কেন আজ ও আইন থাকা সত্বেও মেয়ের বিয়েতে পণ দেওয়া হয়? কেন মেয়েকে সেই শিক্ষা দেওয়া হয়না যে অন্যায় করা এবং অন্যায় সহ্য করা দুটোই অপরাধ?

3
Opinion – Domestic Violence/Bullying

 মেয়েদের মা-বাবার কাছে অনুরোধ আপনার সন্তানটিকে বিয়ে দিয়েই হাত ধুয়ে ফেলবেন না। আপনারা যদি সাপোর্টিভ হন তবে সচরাচর আপনার মেয়েকে কেউ অত হয়রান করতে পারবে না।

 এই পোড়া দেশে বাঘ, কুমীর, সিঙ্ঘ, হাতির জীবন জত দামি ততটা দামি মেয়েদের জীবন নয়। বাঘ হারিয়ে যাচ্ছে আর ছেলেদের অনুপাতে মেয়ে কম হচ্ছে সেতা কি কোন বড় ঘটনা নয়?একটু মানসিকতা বদলালেই অনেক পরিবর্তন আসবে,আপনারা কি একটু সহানুভূতি দেখাবেন?

Advertisements